|

নতুন আঙ্গিকে ময়মনসিংহ জেলা মটর মালিক সমিতির ভবন ও দুটি বাস উদ্বোধন

প্রকাশিতঃ 1:25 am | January 25, 2020

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, ময়মনসিংহঃ ময়মনসিংহ জেলা মটর মালিক সমিতির কার্যালয়কে নতুন আঙ্গিকে সংস্কার করে অধ্যাধুনিক ভবন ও দুটি বাস উদ্বোধন করা হয়েছে।

শুক্রবার (২৪ জানুয়ারি) রাত নয়টায় ময়মনসিংহ জেলা মটর মালিক সমিতির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও জেলা মটর মালিক ও ম্রমিক সংগঠনের পুরোধা ব্যক্তিত্ব আমিনুল হক শামীম (সিআইপি) উদ্বোধন করেন।

এ সময় জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট জহিরুল হক খোকা, ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশন মেয়র মোঃ ইকরামুল হক টিটিু, মটর মালিক সমিতির সভাপতি মমতাজ উদ্দিন, মহাসচিব মাহবুবুর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, জেলা আওয়ামীলীগ নেতা ও আলম এশিয়া পরিবহনের চেয়ারম্যান এডভোকেট ইমদাদুল হক সেলিম, মটর মালিক সমিতির সহ সভাপতি আশরাফ হোসেন এলান, সম্পাদক রবিউল ইসলাম শাহীন, শামছুল আলম, সোমনাথ সাহা, জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুছ ছালাম, সাধারণ সম্পাদক সানোয়ার হোসেন চানু সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

মটর মালিক সমিতি সূত্রে জানাযায়, ময়মনসিংহ জেলা মটর মালিক সমিতির বর্তমান কমিটি গত ১০ মাসে সোনার বাংলা পরিবহন নামে দুটি বাস এবং বিভাগীয় শহরের জুবিলীঘাটস্থ জেলা মটর মালিক সমিতির কার্যালয়কে নতুন আঙ্গিকে সংস্কার করে অধ্যাধুনিক সাজে সাজিয়ে তুলেছেন। একই সাথে মাত্র ১০ মাসে দুটি বাস চালু করেছেন। বাস দুটি শেরপুর-ময়মনসিংহ ঢাকা রোডে গেইটলক সার্ভিস হিসাবে চলাচল করবে।

পরে মমতাজ উদ্দিন মন্তার সভাপতিত্বে সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় আমিনুল হক শামীম যাত্রীদের সর্ব্বোচ্য সেবার অঙ্গিকার ব্যক্ত করে বলেন, এমমাত্র ময়মনসিংহ জেলা মটর মালিক সমিতি পরিবহন ব্যবসায়ী মালিকদের একিভুত সমিতি। যা সারা দেশের আর কোথাও নেই। যানবাহন ব্যবসা একটি সেবাধর্মী ব্যবসা। ঢাকার পরে ময়মনসিংহ থেকে সারা দেশেই যাত্রীবাহি ও সকল যানবাহন চলে। এতে যাত্রীরা তাদের সঠিক সেবা পাচ্ছে। ঈদ বা বিশেষ সময়ে কখনো বাড়তি ভাড়া আদায় করা হয়নি। ভবিষ্যতেও হবেনা।

আমিনুল হক শামীম আরো বলেন, বিগত সময়ে জালাও পোড়াও আন্দোলনে জীবনের ঝুকি নিয়ে যানবাহন চালিয়েছে। শ্রমিকদের যে কোন সময় যে কোন রোডে যানবাহন চালানোর নির্দেশ দিলে তারা মৃত্যুকে ভয় না করে রাস্তায় গাড়ী নিয়ে বের হয়ে গেছে। অনেকেই তৃত্যুবরণ করেছে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পরিবহণখাতের জন্য অনেক কিছু করেছেন। বর্তমানে অনলাইনে ফিটনেস সহ সকল সার্ভিস পাওয়া যাচ্ছে। ঘরে বসেই এ সব সেবা পাওয়া যাচ্ছে।

তিনি বলেন, পরিবহন মালিক ও শ্রমিকরা সব সময় সরকারের পে ছিল ভবিষ্যতেও থাকবে।

এর আগে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এড জহিরুল হক বলেন, দৃষ্টি নন্দন অফিস নির্মাণ হয়েছে। এর পিছনে তরুণ নেতৃত্ব সোমনাথ সাহা এবং তাকে বুদ্ধি পরামর্শ দিয়েছেন আমিনুল হক শামীম।

তিনি পরিবহণ মালিক ও শ্রমিক নেতৃবৃন্দের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, যাত্রীরা যাতে সেবা পায় তার দিকে বিশেষ খেয়াল রাখতে হবে।

এছাড়া এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, মহাসচিব মাহবুবুর রহমান, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, সোমনাথ সাহা, জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুছ ছালাম, সাধারণ সম্পাদক সানোয়ার হোসেন চানু বক্তব্য রাখেন। এ সভা পরিচালনা করেন মটর মালিক সমিতির মহাসচিব মাহবুবুর রহমান।